Melbandhan

০৯/০৯/০৯ তারিখ, অর্থাৎ ২০০৯ সালের ৯ই সেপ্টেম্বর মেলবন্ধন প্রথম ভূমিষ্ঠ হয় কুয়েতের মাটিতে । তার মাস ছয়েক আগে থেকে একটা চিন্তা আমার মাথায় ঘোরাফেরা করছিল । কুয়েতে প্রবাসী বহু বাঙালীর সঙ্গে আমার আলাপ হয়েছিল,- যাদের মধ্যে অনেকেই ভারতীয় বাঙালী অর্থাৎ পশ্চিমবাংলার মানুষ , অনেকেই বাংলাদেশের মানুষ, আবার অনেকেই পশ্চিমবাংলা তথা ভারতের বিভিন্ন অংশের বাসিন্দা হলেও তাদের নাড়ির টান রয়েছে পূর্ববাংলা অর্থাৎ অধুনা বাংলাদেশে । আমি খুব আশ্চর্য হলাম যে দেশে থেকে বাংলা সাহিত্য অনুশীলনের যতটুকু সুযোগ ও উদ্দীপনা তাদের মধে দেখেছি তার চাইতে অনেক বেশি দেখলাম প্রবাসে । ভাবতে শুরু করলাম যে দুই বাংলার প্রবাসী বাঙালীদের লেখা সংকলিত করে একটা বই প্রকাশ করলে কেমন হয় ! - সেই ভাবনারই ফলশ্রুতি এই মেলবন্ধন । নামকরন করতে অনেক চিন্তাভাবনা করতে হয়েছে, বহু মানুষের এবং আমার পরিবারের সদস্যদের মতামত নিয়েছি । শেষপর্যন্ত আমার শ্রদ্ধেয়া বৌদির দেওয়া এই মেলবন্ধন নামটাই যথোপযুক্ত মনে হলো । তারপর বহুদিন কেটে গেছে । পায়ে পায়ে মেলবন্ধন এগিয়ে গিয়েছে ছটি বছর। মেলবন্ধন প্রকাশনার সময় প্রতিবছরই কুয়েতে ভারত এবং বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এবং দূতাবাসের আধিকারিকদের অকুন্ঠ সহযোগিতাও পেয়ে এসেছি । সেই অর্থে মেলবন্ধন যথার্থই একটি আন্তর্জাতিক প্রয়াস । বহু মানুষ খোলা মনে এগিয়ে এসেছেন আমাদের সম্মিলিত প্রয়াসকে আরও সার্থক, আরও মনোগ্রাহী করে তোলার জন্য । স্পনসররা নিয়ত সাহায্য করে গেছেন । পরিবারের নিরলস সহযোগিতা পেয়ে এসেছি । সহ সম্পাদকের সান্নিধ্য আমার সম্পদ হয়ে থাকবে । দু বছর আগে ফেসবুকে মাত্র ১২ জন সদস্য ও সদস্যাকে নিয়ে শুরু করেছিলাম এই ফেসবুক গ্রুপ । আমাকে সহযোগিতা ও দিক নির্দেশ করেছিলেন ডাঃ সন্তোষ কুমার সিনহা মহাশয়,-আমি ভুলব না । আজ এই মুহূর্তে ৩৭০০ এরও বেশি সদস্য ও সদস্যা মেলবন্ধন গ্রুপকে সম্বৃদ্ধ করেছেন । এটা আমার একান্ত নিজস্ব মত যে,---যারা নিয়মিতভাবে এই গুপে কবিতা,গল্প,অনু গল্প,ফিচার,ভ্রমন কাহিনী লিখে চলেছেন--তাদের লেখার গুণগতমান--বর্তমানে বাংলায় প্রকাশিত বহুল প্রচারিত এবং সবচাইতে বেশি জনপ্রিয় পত্রিকা বা সংকলনগুলির মানের থেকে কোন অংশে কম নয় । তাই আজ আমি মেলবন্ধন পরিবারের জন্য গর্বিত । আসুন আমরা সবাই মিলে সর্বাঙ্গসুন্দর করে তুলি মেলবন্ধনকে সকলের স্নেহসিঞ্চনের মাধ্যমে ।
ধর্ম আর রাজনীতির আলোচনা ও সমালোচনাকে দূরে সরিয়ে রেখে যে কোন সুস্থ, সুন্দর, শ্লীল সৃজনকে লালন করবে মেলবন্ধন ।